Sunday, November 18, 2012

হিন্দুধর্ম শিক্ষা

হিন্দুধর্ম শিক্ষা \ সময়-২ ঘণ্টা, পূর্ণমান-১০০

১। সঠিক উত্তরটি উত্তরপত্রে লেখো: ১০×১=১০

ক) ‘সৃজন’ শব্দের অর্থ হলো—
১. বিনাশ করা ২. সৃষ্টি করা ৩. তৈরি করা ৪. আনন্দ করা।
খ) ঈশ্বরের আরাধনা করলে ঈশ্বর—
১. খুশি হন ২. সন্তুষ্ট হন ৩. রাগ করেন ৪. অভিশাপ দেন।
গ) ঈশ্বরের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের জন্য মানুষ কী করে?
১. ঈশ্বর-বন্দনা ২. ঈশ্বরে বিশ্বাস
৩. জীবের গুণকীর্তন ৪. ঈশ্বরের সৃষ্টিকে ভালোবাসা।
ঘ) শুভ কাজ শুরু করার আগে আমরা ঈশ্বরকে স্মরণ করি। তাহলে বিপদে পড়লে কাকে স্মরণ করব?
১. মা-বাবাকে ২. ঈশ্বরকে ৩. শিক্ষককে ৪. বন্ধুকে।
ঙ) বিভিন্ন দেব-দেবীর পূজা করলেও আমাদের উপাসনার মূল উদ্দেশ্য কী?
১. দেব-দেবীর আরাধনা ২. এক ঈশ্বরের আরাধনা
৩. সব দেবতার আরাধনা ৪. গুরুর আরাধনা।
চ) শিষ্টাচারসংশ্লিষ্ট কাজ কোনটি?
১. বড়দের মান্য করা ২. প্রতিদিন বিদ্যালয়ে যাওয়া
৩. সহপাঠীদের সহযোগিতা করা ৪. মন্দিরে গিয়ে উপাসনা করা।
ছ) শিব চতুর্দশীতে শিব পূজা হবে। সব জোগাড় শেষ। কিন্তু একটি প্রধান পূজার উপকরণের ঘাটতি দেখা গেল। তা হলো—
১. সাদা ফুল ২. লাল ফুল ৩. দূর্বা ৪. বেলপাতা।
জ) মন্দির কী ধরনের প্রতিষ্ঠান?
১. রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ২. সামাজিক প্রতিষ্ঠান
৩. ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান ৪. অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান
ঝ) কৈকেয়ীকে দশরথ দুটি ‘বর’ দিলেন। এই বর আসলে কী?
১. আশীর্বাদ ২. কাজের পুরস্কার
৩. কাজে সন্তুষ্ট হয়ে আশীর্বাদসহ পুরস্কার ৪. স্বামী।
ঞ) প্রতিজ্ঞা রক্ষা করা যায় কীভাবে?
১. কথা দিয়ে তা অবশ্যই রক্ষা করা ২. কথা দিয়ে তা রক্ষা করা
৩. পরোপকার করা ৪. চুপ করে বসে থাকা।
২। উপযুক্ত শব্দ দ্বারা শূন্যস্থান পূরণ করো: ৫×২=১০
ক) প্রতিটি প্রাণী বা জীবের মধ্যে — আছে।
খ) ‘কর্ম’ শব্দের অর্থ —।
গ) ঈশ্বর জগতের সৃজন পালন ও — কর্তা।
ঘ) হিন্দুধর্মের প্রধান ধর্মগ্রন্থ —।
ঙ) বেদ — ভাগে বিভক্ত।
৩। নিচের বাক্যগুলো উত্তরপত্রে লিখে বাক্যের ডান পাশে ‘শুদ্ধ’ ও ‘অশুদ্ধ’ লেখো।
ক) ঈশ্বরই ধর্মের মূল।
খ) নিজ ধর্মে অনুগত থাকা শাস্ত্রের নির্দেশ।
গ) রামঠাকুর বলেছেন, যত মত, তত পথ।
ঘ) বিভিন্ন ধর্ম বিভিন্ন ভাষায় বিভিন্ন ঈশ্বরের কথা বলে।
ঙ) সত্য ঈশ্বরতুল্য।
৪। বাঁ পাশের বাক্যাংশের সঙ্গে ডান পাশের বাক্যাংশের মিল করে উত্তরপত্রে লেখো: ২×৫=১০

বাঁ পাশ ডান পাশ

ক) নীতিশিক্ষা ধর্মের ধর্মগ্রন্থ
খ) বেদ একটি মারা গেল
গ) ভারন্ড একটি পাখি হিংসা
ঘ) অন্যের ক্ষতি করার ইচ্ছাকে বলে অহিংসা
ঙ) হিংসা না করাকে বলে অঙ্গ
পুণ্য হয়

৫। সংক্ষেপে উত্তর লেখো (যেকোনো চারটি): ৫×৪=২০

ক) উপনিষদ কাকে বলে? রামায়ণের সাতটি কাণ্ডের নাম লেখো।
খ) আত্মার স্বরূপ কী?
গ) কর্মফলের সঙ্গে পুনর্জন্মের সম্পর্ক কীরূপ?
ঘ) ভীষ্ম কী প্রতিজ্ঞা করেছিলেন?
ঙ) যুধিষ্ঠির রাজ্য হারিয়েছিলেন কেন?
চ) শিষ্টাচার গুণ থাকলে কী হওয়া যায়?
ছ) ধর্মীয় সাম্য রক্ষা করে চললে পৃথিবী কী রকম হবে?
৬। নিচের যেকোনো পাঁচটি প্রশ্নের উত্তর দাও: ৮×৫=৪০
ক) গান্ধারীর পূর্বজন্মের কাহিনিটি সংক্ষেপে লেখো।
খ) কোথায় ও কখন কুম্ভমেলা বসে? কুম্ভমেলায় কী হয়?
গ) কান্তজীর মন্দির কোথায় অবস্থিত? এই মন্দিরে কোন বিগ্রহ প্রতিষ্ঠিত?
ঘ) ‘বেদ’ বলতে কী বোঝো? বেদ কয় ভাগে বিভক্ত ও কী কী?
ঙ) ‘সুস্থ দেহে সুস্থ মন—এর অর্থ লেখো।
চ) উপাসনা-প্রার্থনার পূর্বশর্ত কী? মানুষের মন কীভাবে পবিত্র হয়?
ছ) ‘উদারতা’ একটি মহৎ গুণ কীভাবে? সংক্ষেপে লেখো।

No comments:

Post a Comment