Friday, January 25, 2013

২০১৩ এইচএসসি পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্নাবলি : জীববিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্র

সাজেশন
প্রথম ও দ্বিতীয় অধ্যায় : ভূমিকা ও প্রাণিকোষ
১. প্রাণিবিজ্ঞান পাঠের গুরুত্ব বা পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় প্রাণিবিজ্ঞানের ভূমিকা লেখো।***
২. জীববিজ্ঞান বলতে কী বোঝো? প্রাণিবিজ্ঞানের বিশুদ্ধ ও ফলিত শাখাগুলোর নাম লেখো।***
৩. একক পর্দা (Unit membrane) কী? প্লাজমা মেমব্রেনের 'ফু্লইড মোজাইক মডেল' বর্ণনা করো।****
৪. আদি ও প্রকৃত কোষের পার্থক্য লেখো।**
৫. চিত্রসহ মাইটোকন্ড্রিয়ার গঠন ও কাজ লেখো।***
৬. সেন্ট্রোমিয়ারের অবস্থ্থান অনুসারে ক্রোমোজোমের শ্রেণীবিন্যাস করো।**
৭. কোষীয় অঙ্গানু কী? আদর্শ প্রাণিকোষের চিহ্নিত চিত্র আঁক।***
৮. DNA-এর ভৌত ও রাসায়নিক গঠন এবং Replication (প্রতিরূপ সৃষ্টি) বর্ণনা করো।**
৯. DNA ও RNA-এর পার্থক্য লেখো।***
১০. ক্রোমোজোমের ভৌত ও রাসায়নিক গঠন এবং কাজ লেখো।*
১১. নিউক্লিয়াসের গঠন ও কার্যাবলি বর্ণনা করো।**
১২. সংজ্ঞা : নিউক্লিওটাইড, নিউক্লিওসাইড, নিউক্লিক এসিড, রাইবোসোম, এন্ডোপ্লাজমিক রেটিকুলাম।*

তৃতীয় অধ্যায় : গ্যামিটোজেনেসিস
১৩. গ্যামিটোজেনেসিস কী?**** স্পার্মাটোজেনেসিস প্রক্রিয়ার বর্ণনা দাও।
১৪. শুক্রাণুর গঠন সচিত্র বর্ণনা করো।**
১৫. উওজেনেসিস প্রক্রিয়া বর্ণনা করো।
১৬. স্পার্মাটোজেনেসিস ও উওজেনেসিসের পার্থক্য লেখো।***
১৭. ভ্রূণীয় কোষস্তর কী? তিনটি ভ্রূণীয় স্তরের পরিণতি বর্ণনা করো।****
১৮. নিষেক কী? ব্যক্তিজনিক পরিস্ফুটনের দশাগুলোর বা ক্লিভেজ ও গ্যাস্ট্রুলেশন পর্যায় বর্ণনা করো।*

চতুর্থ অধ্যায় : জিনতত্ত্ব
১৯. মেন্ডেলের প্রথম ও দ্বিতীয় সূত্রের ব্যাখ্যা করো।**
২০. এপিস্ট্যাসিস কী? ১৩ : ৩ অনুপাতটি ব্যাখ্যা করো।****
২১. Lethal gene/২:১ অনুপাত/মারণজিন ব্যাখ্যা করো।*
২২. 9 : 7 (দ্বৈত প্রচ্ছন্ন এপিস্ট্যাসিস) অনুপাতটি ব্যাখ্যা করো।**
২৩. Sex Linked Inheritance (লিঙ্গসংশ্লিষ্ট বংশানুক্রম) কী? বর্ণান্ধতা উদাহরণ দিয়ে ব্যাখ্যা করো।**
২৪. সংজ্ঞা : ফ্যাক্টর, অ্যালিল, হোমোজাইগাস, প্রকট বৈশিষ্ট্য, জিনোটাইপ, টেস্ট ক্রস।

পঞ্চম অধ্যায় : কলা ও কলাতন্ত্র
২৫. যোজক কলা কী? এর বৈশিষ্ট্য ও কাজ লেখো।*
২৬. একটি নিউরনের গঠন ও কাজ লেখো।****
২৭. কলাস্থানিক বৈশিষ্ট্য লেখো_পাকস্থলী, ক্ষুদ্রান্ত্র, যকৃৎ, ফুসফুস, বৃক্ক, অগ্ন্যাশয়।***
২৮. পার্থক্য লেখো : অস্থি ও তরুণান্থি এবং ঐচ্ছিক ও অনৈচ্ছিক পেশি।***

ষঠ অধ্যায় : প্রাণী বৈচিত্র্য ও শ্রেণীবিন্যাস
২৯. Vertebrata উপপর্বের বৈশিষ্ট্য, প্রতিটি শ্রেণীর ধারাবাহিক নাম, বৈশিষ্ট্য ও উদাহরণ লেখো।****
৩০. Chordata ও Non-chordata পার্থক্য।**
৩১. প্রাণিজগতের প্রধান পর্বগুলোর নাম (ইংরেজিতে), বৈশিষ্ট্য ও উদাহরণ লেখো।****
৩২. দ্বিপদ ও ত্রিপদ নামকরণ কী? দ্বিপদ নামকরণের নিয়মাবলি লেখো।***
৩৩. প্রতিসাম্যতা কী? প্রকারভেদ করো।
৩৪. 'সব মেরুদণ্ডী প্রাণীই কর্ডেট, সব কর্ডেটই মেরুদণ্ডী নয়'_ব্যাখ্যা করো।***
৩৫. জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা বা গুরুত্ব লেখো।**
৩৬. শ্রেণীবিন্যাস কী? প্রাণী শ্রেণীবিন্যাসের প্রয়োজনীয়তা লেখো।*
৩৭. বাংলাদেশের বিলুপ্ত প্রায় প্রাণীর বৈজ্ঞানিক নাম লেখো।
৩৮. সংজ্ঞা লেখো : সিলোম, খণ্ডায়ন, ধরিত্রী সম্মেলন, Hot Spot, Flora ও Fauna.**

৭.১ অধ্যায় : ম্যালেরিয়ার পরজীবী
৩৯. ম্যালেরিয়া ও ম্যালেরিয়া পরজীবী কী? এর শ্রেণীবিন্যাস করো।**
৪০. মানবদেহে ম্যালেরিয়া রোগ সৃষ্টিকারী চারটি পরজীবীর নাম, সৃষ্ট রোগের নাম, জ্বরের প্রকৃতি ও সুপ্তাবস্থাকাল লেখো।***
৪১. মানুষের লোহিত কণিকায় ম্যালেরিয়া পরজীবীর অযৌন প্রজনন বর্ণনা করো।***
৪২. মানুষের যকৃতে ম্যালেরিয়া পরজীবীর অযৌন প্রজনন বা হেপাটিক (যকৃতে) সাইজোগনি বর্ণনা করো।**
৪৩. ম্যালেরিয়া পরজীবীর নিয়ন্ত্রণ ও জ্বরের কারণ লেখো।
৪৪. মশকীর দেহে ম্যালেরিয়া পরজীবীর জীবনচক্র (গ্যামেটোগনি ও স্পোরোগনি) বর্ণনা করো।
৪৫. ম্যালেরিয়া পরজীবীর যৌন ও অযৌন চক্রের পার্থক্য করো।**
৪৬. ম্যালেরিয়া পরজীবীর জীবনচক্রের জনুক্রম ব্যাখ্যা করো।**
৪৭. ম্যালেরিয়া পরজীবীর জীবনে দুটি পোষকের প্রয়োজনীয়তা লেখো।***
৪৮. সংজ্ঞা : সুপ্তাবস্থা ও প্যাথোজেনিক পরজীবী, পোষক, ভেক্টর।**
৭.২ অধ্যায় : হাইড্রা
৪৯. হাইড্রার শ্রেণীবিন্যাস করো।**
৫০. শ্রমবণ্টন কী? হাইড্রার কোষীয় ও আঙ্গিক শ্রমবণ্টন ব্যাখ্যা করো।****
৫১. মেসোগিয়া কী? এর কাজ লেখো।*
৫২. হাইড্রার বিভিন্ন প্রকার নেমাটোসিস্টের বর্ণনা দাও।**
৫৩. হাইড্রার লুপিং ও সমারসল্টিং চলন বর্ণনা করো।****
৫৪. হাইড্রার আদর্শ নিডোবাস্ট বা নিডোসাইট কোষের গঠন বর্ণনা করো।***
৫৫. মুকুলোদগমের মাধ্যমে হাইড্রার অযৌন প্রজনন ব্যাখ্যা করো।**
৫৬. হাইড্রার বহির্ত্বকীয় কোষসমূহের নাম ও কাজ লেখো।
৫৭. মিথোজীবিতা উদাহরণসহ ব্যাখ্যা করো।***
৫৮. Hydra-i প্রস্থচ্ছেদের চিহ্নিত চিত্র আঁক।
৫৯. পার্থক্য লেখো : দ্বিস্তরী ও ত্রিস্তরী প্রাণী, সিলোম ও সিলেন্টেরন এবং লুপিং ও সমারসল্টিং।***

৭.৩ অধ্যায় : তেলাপোকা
৬০. তেলাপোকার শ্রেণীবিন্যাস করো।***
৬১. চিত্রসহ তেলাপোকার ওমাটিডিয়ামের গঠন ও কার্যাবলি বর্ণনা করো।****
৬২. রেচন অঙ্গগুলোর নাম উল্লেখপূর্বক তেলাপোকার প্রধান রেচন অঙ্গের বা মালপিজিয়ান নালিকার বর্ণনা (গঠন ও কাজ বা রেচনপদ্ধতি) দাও।**
৬৩. তেলাপোকার লালাগ্রন্থির বর্ণনা দাও।***
৬৪. তেলাপোকার রূপান্তরের বর্ণনা করো।**
৬৫. পুং ও স্ত্রী তেলাপোকার পার্থক্য লেখো।**
৬৬. উওথিকা কী? তেলাপোকার উওথিকা কিভাবে গঠিত হয়?***
৬৭. তেলাপোকার ট্রাকিয়ালতন্ত্রটি চিত্রসহ বর্ণনা করো।**
৬৮. তেলাপোকার মুখোপাঙ্গের বর্ণনা করো।
৬৯. উজ্জ্বল বা এপোজিশন ও স্থিমিত বা সুপারপজিশন আলোতে তেলাপোকার দর্শন কৌশল বর্ণনা করো?**
৭০. পার্থক্য লেখো : ট্রাকিয়া ও ট্রাকিওল, সুপারপজিশন ও এপোজিশন এবং পুঞ্জাক্ষি ও সরলাক্ষি।***
৭১. সংজ্ঞা : ওসেলাস, হিমোসিল, হিমোলিম্ফ।

৮.১ অধ্যায় : মানবদেহ (কঙ্কালতন্ত্র)
৭২. মানুষের শ্রেণীবিন্যাস করো।**
৭৩. অস্থিসন্ধি বলতে কী বোঝো? সাইনুভিয়াল অস্থিসন্ধির গঠন বর্ণনা করো।***
৭৪. মানুষের অনন্য বৈশিষ্ট্যসমূহ লেখো।**
৭৫. ফিমার অস্থির গঠন ও কাজ লেখো।
৭৬. কঙ্কালতন্ত্র কী? এর কাজ লেখো।***

৮.২ অধ্যায় : মানবদেহ (পৌষ্টিকতন্ত্র)
৭৭. দন্ত সংকেত কী? প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের দন্ত সংকেত ব্যাখ্যা করো।**
৭৮. পরিপাক কী? শর্করা ও প্রোটিনজাতীয় খাদ্যের পরিপাক প্রক্রিয়া বর্ণনা করো।****
৭৯. ক্ষুদ্রান্ত্রে খাদ্য পরিপাক প্রক্রিয়া বর্ণনা করো।
৮০. Ilium ও Ileum-এর মধ্যে পার্থক্য লেখো।**

৮.৩ অধ্যায় : মানবদেহ (রক্ত ও রক্ত সংবহনতন্ত্র)
৮১. রক্ততঞ্চন প্রক্রিয়ার বর্ণনা দাও।***
৮২. কার্ডিয়াক চক্র বা হৃদচক্রের বর্ণনা দাও। ***
৮৩. হৃৎপিণ্ডের মাধ্যমে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া বর্ণনা করো।***
৮৪. উচ্চ রক্তচাপজনিত জটিলতা ও প্রতিরোধের উপায়।**
৮৫. লসিকা কী? এর কাজ লেখো।*
৮৬. রক্ত কী? রক্তের উপাদানগুলোর বর্ণনা ও কাজ লেখো।**
৮৭. Rh ফ্যাক্টর কী? মানবগোষ্ঠীতে Rh ফ্যাক্টরের গুরুত্ব আলোচনা করো।****
৮৮. A, B, O ব্লাড গ্রুপের বৈশিষ্ট্য লেখো। মানুষের হৃৎপিণ্ডের লম্বচ্ছেদ আঁক।***
৮৯. পার্থক্য লেখো : ধমনী ও শিরা।****

৮.৪ অধ্যায় : মানবদেহ (শ্বসনতন্ত্র)
৯০. বহিঃশ্বসন ও অন্তঃশ্বসনের পার্থক্য লেখো।**
৯১. বায়ুদূষণ ও ধূমপানজনিত শ্বসন জটিলতা লেখো।***
৯২. অ্যালভিওলাসের গঠন বর্ণনা করো।
৯৩. শ্বসনে হিমোগ্লোবিনের ভূমিকা লেখো।*
৯৪. অন্তঃশ্বসনে O2 ও CO2-এর পরিবহন বর্ণনা করো।**

৮.৫ অধ্যায় : মানবদেহ (রেচনতন্ত্র)
৯৫. মূত্র কী? এর উপাদান লেখো।***
৯৬. নেফ্রন কী? চিত্রসহ একটি নেফ্রনের গঠন বর্ণনা করো।****
৯৭. অসমোরেগুলেশনে রেচনতন্ত্রের ভূমিকা।*
৯৮. N2 গঠিত বর্জ্যপদার্থ অপসারণে রেচনতন্ত্রের ভূমিকা।**
৯৯. পার্থক্য লেখো : মালপিজিয়ান নালিকা ও মালপজিয়ান বডি বা নিউরন ও নেফ্রন।***

৮.৬ অধ্যায় : মানবদেহ (স্নায়ুতন্ত্র)
১০০. সিন্যাপসের গঠন ও কাজ।**
১০১. মানুষের করোটিক স্নায়ুগুলোর নাম, উৎপত্তিস্থল, বিস্তার, প্রকৃতি ও কাজ লেখো।***
১০২. পার্থক্য : সেরেব্রাম ও সেরেবেলাম বা করোটিক ও সুষমা স্নায়ু বা সংবেদী ও মোটর স্নায়ু।

৮.৭ অধ্যায় : মানবদেহ (সংবেদী অঙ্গ)
১০৩. চোখের লম্বচ্ছেদ, বিভিন্ন অংশের নাম ও কাজ।****
১০৪. অন্তঃকর্ণ বা মেমব্রেনাস ল্যাবিরিন্থ বর্ণনা করো।***
১০৫. উপযোজন কী? রড কোষ ও কোন কোষের পার্থক্য।*
১০৬. মানুষের শ্রবণ ও ভারসাম্য রক্ষার কৌশল।**

৮.৮ অধ্যায় : মানবদেহের গ্রন্থি
১০৭. অন্তঃক্ষরা ও বহিঃক্ষরা গ্রন্থি কী? বিভিন্ন প্রকার গ্রন্থির নাম, নিঃসৃত হরমোন ও কাজ।***
১০৮. গ্রন্থি কী? হরমোন ও এনজাইম এবং অন্তঃক্ষরা ও বহিঃক্ষরা গ্রন্থির পার্থক্য লেখো।***

৮.৯ অধ্যায় : মানবদেহ (প্রজননতন্ত্র)
১০৯. অমরা কী? এর কাজ লেখো।***
১১০. ভ্রূণ আবরণীর বর্ণনা বা বয়ঃসন্ধিকাল কী? বয়ঃসন্ধিকালে হরমোনের ভূমিকা লেখো।*
১১১. মাতৃদুগ্ধ পানের সুফল বর্ণনা করো।***

নবম অধ্যায় : প্রাণী ভূগোল
১১২. প্রাণী ভৌগোলিক অঞ্চলগুলোর নাম ও বিস্তৃতি, প্যালিআর্কটিকের ভৌগোলিক সীমারেখা।
১১৩. অস্ট্রেলিয়ান অঞ্চলের ভৌগোলিক সীমারেখা ও ৮টি endemic প্রাণীর নাম লেখো।***
১১৪. Endemic প্রাণী কী? Oriental region-এর ভৌগোলিক সীমারেখা ও ৮টি endemic প্রাণীর নাম লেখো।***

দশম অধ্যায় : বাস্তুতন্ত্র
১১৫. বাস্তুতান্ত্রিক পিরামিডের বর্ণনা করো। খাদ্যচক্র বলতে কী বোঝো*
১১৬. বাস্তুতন্ত্রের উপাদানগুলোর বর্ণনা করো।*
১১৭. পরিবেশ বিপর্যয়ের কারণ ও ফলাফল। গ্রিনহাউস প্রতিক্রিয়া বলতে কী বোঝো?**
১১৮. মরুকরণের বা বনভূমি ধ্বংসের কারণ ও ফলাফল।***

একাদশ অধ্যায় : অর্থনৈতিক প্রাণিবিদ্যা
১১৯. মুক্তা ও মুক্তামাতা কী? মুক্তা সৃষ্টির প্রক্রিয়া লেখো।*
১২০. ফাইলেরিয়া রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার বর্ণনা করো।***
১২১. মুক্তা উৎপাদনকারী ৫টি ঝিনুকের বৈজ্ঞানিক নাম ও ঝিনুকের অর্থনৈতিক গুরুত্ব লেখো।***
১২২. অ্যামিবিয়াসিসের রোগতাত্তি্বক (লক্ষণ, উৎস ও প্রতিকার) দিক আলোচনা করো।****

দ্বাদশ অধ্যায় : জৈব প্রযুক্তি
১২৩. ইনসুলিন কী? জৈব প্রযুক্তির মাধ্যমে ইনসুলিন উৎপাদন প্রক্রিয়া বর্ণনা করো।****
১২৪. জিন প্রকৌশল কী? কৃষি উন্নয়নে জৈব প্রযুক্তির বা জিন প্রকৌশলের গুরুত্ব লেখো।**
১২৫. ওষুধ শিল্পে জৈব প্রযুক্তির গুরুত্ব বা ব্যবহার লেখো।*
১২৬. Recombinant DNA প্রযুক্তির ধাপগুলো বর্ণনা করো।**
১২৭. সংজ্ঞা : প্লাজমিড, রিকম্বিনেন্ট DNA, ভ্যাকসিন, অ্যান্টিবায়োটিক, ইন্টারফেরন, জিন, ক্লোনিং।**
১২৮. ট্রান্সজেনিক প্রাণী কী? উন্নত মানের প্রাণী উদ্ভাবনে জিন প্রযুক্তির ব্যবহার লেখো।*

২, ৫, ৬, ২০, ২৬, ২৭, ৩১, ৩৪, ৩৫, ৪১, ৪৫, ৫২, ৫৩, ৬৫, ৬৬, ৭৩, ৭৫, ৮০, ৮৬, ৮৭, ৯৩, ৯৬, ১০১, ১১০, ১১৩, ১২০ প্রশ্নগুলো ঢাকা বোর্ডের পরীক্ষার্থীদের পড়ার প্রয়োজন নেই।

No comments:

Post a Comment